1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন

প্রবাসী নারীদের আইডি হ্যাক করে দোয়ারার মামুন হাতিয়ে নিতেন লাখ লাখ টাকা

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০.১৯ এএম
  • ১৭৫ বার পড়া হয়েছে

হাওর ডেস্ক::
প্রবাসী নারীদের টার্গেট করে ফেসবুক আইডি হ্যাক করে সুনামগঞ্জের মামুন মিয়া (২০) হাতিয়ে নিতেন লাখ লাখ টাকা।
এসব অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (২২ জুন) সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত গ্রাম হতে তাকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।
মামুন সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের মান্নারগাঁও গ্রামের এসকান্দর মিয়ার ছেলে বলে এ প্রতিবেদকে বুধবার বিকেলে নিশ্চিত করেন ডিএমপির সাইবার স্পেশাল এন্ড ক্রাইমের বিভাগের একজন এডিসি।
এরপুর্বে বুধবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার একে এম হাফিজ আক্তার পিপিএম (বার)।
তিনি বলেন, সুনামগঞ্জের হাওর এলাকার দোয়ারাবাজারের মান্নারগাঁও একটি প্রত্যন্ত গ্রামে থেকে মামুন মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়।
মাত্র এসএসসি পাস করা এই যুবক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে বিভিন্ন সময়ে নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন।
স্থানীয় একটি ট্রেনিং সেন্টার থেকে আইটির ওপর কোর্স করে প্রতারণা শুরু করেন মামুন। অভিনব কায়দায় প্রতারণার পাশাপাশি ভুক্তভোগী নারীদের বলতেন, তার প্রতারণার কৌশল কেউ প্রমাণ করতে পারবে না। কেউ ধরতে পারবে না বলে চ্যালেঞ্জও দিতেন। ধরতে পারলে হাজার ডলার পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণাও দেন মামুন।
এর আগেও ফেসবুক হ্যাকের অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয় মামুনের বিরুদ্ধে। এবার প্রবাসী নারীদের ফেসবুক আইডি হ্যাকের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, প্রতারণার মাধ্যমে আয় করা টাকা দিয়ে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেন মামুন। তিনি বহু নারীর আইডি হ্যাক করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাস করলেও মামুন ব্যবহার করতেন দামি মোটরসাইকেল এবং আইফোন ম্যাক্স মডেলের মোবাইল ফোন। তাকে গ্রেফতারের সময় এগুলো জব্দ করা হয়েছে।
আইডি হ্যাক করার পর ভিকটিম নারীদের ছবি ব্যবহার করে ব্লাকমেইল করত কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা বেশ কিছু অভিযোগ পেয়েছি। সে এখন দুই দিনের রিমান্ডে আছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার মোবাইলের ফরেনসিক টেস্ট করতে পাঠিয়েছি। রিপোর্ট এলে বিস্তারিত বলা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!