1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৫:১৩ অপরাহ্ন

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ার যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা! মামলা

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ২ মে, ২০২১, ১১.৩২ পিএম
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে

ধর্মপাশা প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের একটি গ্রামের বাসিন্দা এক তরুণী (২১) বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ছুটন সরকার (২৬) নামের এক যুবক ধারালো ছোরা দিয়ে নিজের শরীরে এলোপাতাড়ি আঘাত করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (১ মে) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। আত্মহত্যার চেষ্টাকারী যুবকের বাড়ি নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার চানপুর গ্রামে। এ ঘটনায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে ওই যুবককে আসামি করে শনিবার রাতে থানায় একটি মামলা করেছেন।

এলাকাবাসী ও ধর্মপাশা থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের গাছতলা বাজারে একটি কাপড়ের দোকানে বছর দেড়েক আগে দর্জির কাজ করতেন নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার চানপুর গ্রামের বাসিন্দা ছুটন সরকার। কাপড়ের দোকানে আসা-যাওয়া এবং কাপড় কিনে দর্জিকে দিয়ে জামা সেলাই করানোর সুবাদে পাইকুরাটি ইউনিয়নের ওই তরুণীর সঙ্গে যুবকের পরিচয় হয়। যুবকের ভালো আচরণের ফলে তরুণীর বাবা-মায়ের সঙ্গেও তার ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ফলে প্রায়ই ওই তরুণীর বাড়িতে আসা-যাওয়া করতেন ছুটন।

পরিচয়ের মাস তিনেক পর ওই তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন ছুটন। কিন্ত ওই তরুণী এ ব্যাপারে কোনো সাড়া দেননি। এতে রেগে যান ছুটন। এরপর তিনি ওই তরুণীর বাবা-মায়ের কাছে তাদের মেয়েকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন। এতে রাজি না হলে বা ওই তরুণীকে অন্য কোথাও বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে নিজে আত্মহত্যা করে ওই পরিবারের সকল সদস্যকে বিপদে ফেলার হুমকি দিয়ে ছুটন তার নিজ উপজেলা কলমাকান্দায় চলে যান।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ওই যুবক তরুণীর বাড়িতে যান। বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হওয়ার জন্য ওই তরুণী ও তার বাবা-মাকে নানাভাবে চাপ দেন তিনি। কিন্তু কোনোরকম সম্মতি না পেয়ে একপর্যায়ে ওই যুবক তরুণীর বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে তার সঙ্গে থাকা ধারালো ছোরা দিয়ে নিজের শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করেন। এ অবস্থায় স্থানীয় লোকজন জড়ো হয়ে ওই যুবককে আটক করে ধর্মপাশা থানার পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ বিকেল ৪টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে উদ্ধার করে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গিয়ে সাময়িক চিকিৎসা করিয়ে তাকে থানায় নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ওই তরুণীর বাবা বাদী হয়ে ছুটনকে আসামি করে শনিবার সন্ধ্যায় ধর্মপাশা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগটিকে ওইদিন গভীর রাতে মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করেছে পুলিশ।

ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খালেদ চৌধুরী বলেন, ‘এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। ওই যুবককে আজ (রবিবার) সকালে আদালতের মাধ্যমে সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!