1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৭:৪২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
মধ্যনগরে জলমহালের পাহারাদারের উপর হা ম লা য় শি শুসহ আ হ ত ৩ ঘুরে দাঁড়াতে হবে, এই সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না : ফখরুল কোটা আ ন্দো ল ন : দেশে প্রাণ হারালেন ছয় জন কোটা আন্দোলনে হঠাৎ উ ত্ত প্ত সিলেট আবারো স্থগিত করা হলো সিলেটের এইচএসসি পরীক্ষা সিটি এলাকায় সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ও বন্ধ ঘোষণা ছাত্র রাজনীতি ‘নিষিদ্ধের’ অঙ্গীকারনামায় প্রাধ্যক্ষদের সই নিয়েছে ঢাবির হলের সকল শিক্ষার্থীরা ঢাকা কলেজের সামনে পড়ে থাকা সেই মরদেহ ‘ছাত্রলীগ কর্মী’ সবুজের অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য সব কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, হল ত্যাগের নির্দেশ নতুন মুদ্রানীতি: মূল্যস্ফীতি বশে আনা, আরও যেসব পদক্ষেপ নিতে চান অর্থনীতিবিদরা

সরকারি প্রকল্প কাজে কোনো লুকোচুরি করবেন না : পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৯.৪৪ এএম
  • ১৬৩ বার পড়া হয়েছে

হাওর ডেস্ক ::
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান কর্মকর্তাদের বলেছেন ‘সরকারি প্রকল্প কাজে কোনো লুকোচুরি করবেন না। সরকার চাইবে, সরকারের প্রতিটি কাজ জনগণের নজরে আসুক এবং জনগণ সেগুলো পরীক্ষা করুক।’
আজ রবিবার রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে ‘অ্যাসেসমেন্ট অব বাংলাদেশ পাবলিক প্রকিউরমেন্ট সিস্টেম’ শীর্ষক এক কর্মশালায় এ মন্তব্য করেন মন্ত্রী। বিশ্ব ব্যাংক এ কর্মশালার আয়োজন করে।
সরকারি ৭০ ভাগ প্রকল্প যথাসময়ে বাস্তবায়ন হয় না। আইএমইডি সচিবের কথার জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমরা ব্যথা পাই, যখন শুনি ৭০ ভাগ প্রকল্প যথাসময়ে শেষ হয় না। এটা আমাদের জন্য ভয়ংকর অগ্রহণযোগ্য বিষয়।’
মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা যারা কাজ করেন। আপনাদের গাড়ির প্রয়োজন, বাসার প্রয়োজন, সেটা জনগণের অর্থ দিয়ে আমরা করে দিই। এর বিনিময়ে আমরা যখন কাজ পাই না, তখন ব্যথা পাই। জনগণের সামনে আপনাদের হয়তো মুখোমুখি হতে হয় না। কিন্তু আমাদের প্রতিনিয়ত মুখোমুখি হতে হয়।’
পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের কাজে স্বচ্ছতা আনা হবে বলে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিটি কাজে জনগণ, সরকারের সৃষ্ট নিয়মকানুনকে প্রতিপালন করে, খোলামেলা পরিবেশে, সবার এক্সেসের মধ্যে সম্পূর্ণ করব। যার ফলে নেতিবাচক যে ধারণা আছে, সময়মতো কাজ হয় না, ঢিলেমি হয়, দুর্নীতি হয়– সেগুলো আমরা পর্যায়ক্রমে দূর করতে পারব।’
আইএমইডির সচিবসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আমার অনুরোধ থাকবে, প্রতিটি কাগজ যথাযথভাবে দেখবেন। আমরা চেষ্টা করব বা দেখব, যে অভিযোটা আসল সেটা যেন তলিয়ে গিয়ে মনোযোগের সঙ্গে দেখি। সেটা যেন সমাধানের চেষ্টা করি।’
কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ও ভুটানে নিযুক্ত বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মারসি মিয়াং টেমবন, বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) সচিব আবুল মনসুর ফয়জুল্লাহ, বিশ্ব ব্যাংকের প্রধান প্রকিউরমেন্ট কনসালটেন্ট পিটার আরমিন ট্রেপটি, জ্যেষ্ঠ প্রকিউরমেন্ট স্পেশালিস্ট ইশতিয়াক সিদ্দিকসহ সংশ্লিষ্টরা।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!