1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
মধ্যনগরে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা সুনামগঞ্জে শোকের দিনে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের গৃহনির্মাণ সহায়তা দিল প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার সুনামগঞ্জে বিভিন্ন উপজেলায় জাতীয় শোক দিবস পালন শাল্লায় অবৈধ ড্রেজারে সরকারি ভূমি ভরাট করার অপরাধে ফেনী ভূষণকে অর্থদণ্ড মধ্যনগরে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা সুইস রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য বিব্রতকর: হাইকোর্ট আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ টিমের কোচ সুনামগঞ্জের আবু নাসের দোয়ারায় পাগলা শিয়ালের কামড়ে নারী ও শিশুসহ আহত ১৫ সিবিইইউ ও সাস্টিয়ান সুনামগঞ্জ এর গৃহনির্মাণ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ সুনামগঞ্জের বিভিন্ন সীমান্তে ১৫ লক্ষ টাকার অবৈধ পণ্য জব্দ করেছে বিজিবি

মোহনপুরে দেড় শতাধিক সরকারি বৃক্ষ নিধন: দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মুক্তিযোদ্ধার আবেদন

  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৮, ১০.০৬ এএম
  • ১৭৮ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার::
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের সরকারি একটি সড়কের প্রায় দেড় শতাধিক বিভিন্ন প্রজাতির বৃক্ষ পরিবেশ আইন লঙ্গন করে কেটে ফেলার অভিযোগে সুনামগঞ্জ বন বিভাগ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সদস্য সচিব ও ‘হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলন’র সদর উপজেলা আহ্বায়ক মালেক হুসেন পীর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন।
লিখিত আবেদনে মালেক হুসেন পীর অভিযোগ করেন, বাণীপুর-রাশনগর সরকারি সড়কের বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় দেড় শতাধিক বৃক্ষ মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. নূরুল হকের নির্দেশে কেটে ফেলছেন তারই আতœীয় সাইদুল আমীন। পরিবেশ আইন লঙ্গন করে বৃক্ষনিধনের পর এই বৃক্ষ তারা নিজেরা নিয়ে গেছেন। গত কয়েকদিন বৃক্ষ নিধন চললেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কেউ এই পরিবেশ বিনাশী কার্যক্রমে এখনো বাধা দেয়নি। ওই চক্র এই সড়কের আরো গাছ কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।
মুক্তিযোদ্ধা মালেক হুসেন পীর বলেন, সাংগঠনিক কাজে আমি গত ২২ জানুয়ারি ওই এলাকায় গিয়ে দেখতে পাই হেফাজতে ইসলামের স্টাইলে কয়েকজন ব্যক্তি দেড় শতাধিক বৃক্ষ কাটছে। বৃক্ষ কাটার পর তারা ঠেলাগাড়ি করে সেগুলো পাচারও করছে। প্রকাশ্যে পরিবেশ বিনাশী এমন কা- দেখে আমার খারাপ লাগে। তাই নাগরিক দায়িত্ববোধ থেকেই আমি জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে লিখিত অভিযোগ করেছি।
সুনামগঞ্জের রেঞ্জ অফিসার মো. হায়দার হোসেন বলেন, আমি অফিসের বাইরে থাকায় লিখিত অভিযোগের বিষয়টি জানিনা। তবে অভিযোগ করা হয়ে থাকলে অবশ্যই বিষয়টি জরুরি ভিত্তিতে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!