1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সুনামগঞ্জে শিশু সাংবাদিকতা বিষয়ে দু’দিনের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন সুনামগঞ্জ মুক্তদিবসে রাজাকারদের বিচারের দাবি সাজানো মামলায় দিরাইয়ে সাংবাদিক লিটনকে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ ১২ বছরে দেশে বিষ্ময়কর উন্নয়ন করেছে : পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান শহিদ বুদ্ধিজীবী দিবস, বিজয় দিবস ও সুনামগঞ্জ মুক্ত দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা শুরু হলো বিজয়ের মাস ধর্মপাশায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার তাহিরপুরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সুনামগঞ্জ সদর ও শান্তিগঞ্জের ৪ ইউনিয়নে জামানত হারালেন আ. লীগ প্রার্থী জনগণকে বিজয় উৎসর্গ করলেন মোহনপুরে বিজয়ী চেয়ারম্যান মঈন উল হক

শাল্লায় জাল সনদে ১১ বছর ধরে শিক্ষকতা করছেন মৌলভী হোসাইন

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২১, ৬.৪৪ পিএম
  • ৩৯ বার পড়া হয়েছে

শাল্লা প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) সনদ জালিয়াতির মাধ্যমে ১১ বছর ধরে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে চাকরির অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদী। তিনি শাল্লা উপজেলার কান্দিগাঁও গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে এবং স্থানীয় শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষক। হুসাইন আহম্মদ শাহিদীর এমন জালিয়াতির প্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার একই গ্রামের মৃত কিতাব আলীর ছেলে মো. ইকরামুল হোসেন বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালের ১৭ আগস্ট শাল্লা উপজেলার শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে মৌলভী শিক্ষক (ইনডেক্স নম্বর-১০৫২০৮৬) হিসেবে যোগদান করেন মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদী। যোগদানের সময় তিনি নিজেকে এনটিআরসিএ কর্তৃক নিবন্ধিত শিক্ষক হিসেবে দাবি করেন। বিদ্যালয়ে প্রদানকৃত কাগজাদির মধ্যে এনটিআরসিএ সনদও ছিলো। ওই সনদ অনুযায়ী, মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদী ২০০৮ সালের এনটিআরসিএ নিবন্ধন পরীক্ষায় ইসলাম শিক্ষা বিষয়ে অংশগ্রহণ করেন এবং ৪৯.৫০ মার্ক পেয়ে উত্তীর্ণ হন। ২০০৯ সালের ফেব্রæয়ারি মাসে ইস্যুকৃত ওই সনদের সিরিয়াল নম্বর-৮২৮৬৯৯৭, রেজিস্ট্রেশন নম্বর-৮০০১৭৬৫৩/২০০৮ এবং রোল নম্বর-১০৭২৫০১৮।

কিন্তু এনটিআরসিএ’র জাতীয় ওয়েবসাইটে শাহিদীর রোল নম্বর লিখে অনুসন্ধান করলে কেঁচো খুঁড়তে সাপ বেরিয়ে আসে। শাহিদীর ১০৭২৫০১৮ রোল নম্বর লিখে সার্চ দিয়ে পাওয়া যায় মো. হাফিজুর রহমান নামের অন্য এক ব্যক্তির তথ্য। অথচ ওই রোল নম্বর সার্চ করলে শাল্লার শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষকের কোনো তথ্যই পাওয়া যায়নি।
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মৌলভী শিক্ষক মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদী আদৌ জাতীয় শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেননি। তিনি নিবন্ধন সনদ জালিয়াতির মাধ্যমে সুনামধন্য শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতায় যোগদান করে অন্যায়ভাবে প্রতিমাসে বেতন হিসেবে সরকারি টাকা নির্দ্বিধায় গ্রহণ করছেন, যা সরকারি অর্থ আত্মসাতের শামিল।
অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়, মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদী ভুয়া সনদে শিক্ষকতায় যোগদান করে বিভিন্ন স্থানে নিজের ও পরিবারের অন্য সদস্যদের নামে কোটি টাকার জমি কিনেছেন, যা ওই শিক্ষকের প্রকৃত আয় বহির্ভূত অর্থ। এছাড়া মৌলভী শিক্ষক শাহিদীর দখলে সরকারি জমিও রয়েছে। এলাকায় তার বাহিনী রয়েছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করেছেন একরামুল হোসেন। মঙ্গলবার তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়, এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদীর জাতীয় শিক্ষক নিবন্ধন সার্টিফিকেট জালিয়াতির বিষয় এবং বিভিন্ন অপকর্মের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানান।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. হুসাইন আহম্মদ শাহিদীর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।
জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম আজকের পত্রিকাকে বলেন, অভিযোগ হয়তো ডেস্কে রয়েছে। আমার কাছে এখনো আসেনি। অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!