1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নিয়ম বহির্ভূত ফি ফেরত দিচ্ছে সুনামগঞ্জ সরকারি এসসি গার্লস হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য ১১ দফা নির্দেশনা নাসিক প্রমাণ দিল দলীয় সরকারের অধীনেও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব শাবিপ্রবি শিক্ষকদের সাথে সন্ধ্যায় আলোচনায় বসবেন শিক্ষামন্ত্রী অনশনের ৬০ ঘণ্টা: মুখে স্যালাইনও নিচ্ছেন না, বাড়ছে ঝুঁকি শাবিপ্রবিতে অনশন: ১৬ জন হাসপাতালে ভর্তি শাবি’র সংকটে সাস্টিয়ান সুনামগঞ্জ এর উদ্বেগ শাল্লায় ফসলরক্ষা বাঁধের কাজে দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় মামলার আসামি হলেন চেয়ারম্যান বৃটিশ মন্ত্রী-এমপির উপস্থিতিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, র‌্যাব সৃষ্টি করেছে, প্রশিক্ষণ দিয়েছে আমেরিকা-বৃটেন! বাংলাদেশসহ ১০৫ দেশ করোনার পিল কম দামে পাচ্ছে

ছাতকে বিদ্যুতের নির্বাহী প্রকৌশলীর অপসারণ দাবি

  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১, ১২.২৩ পিএম
  • ৫৯ বার পড়া হয়েছে

ছাতক প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের ছাতকে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড বিভাগে গ্রাহক হয়রানি, অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদে ও নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন সরদারের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।

বুধবার ছাতক বিদ্যুৎ বিভাগের কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

ব্যবসায়ী কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন ইউপি সদস্য সালেহ আহমদ, ব্যবসায়ী আব্দুল হাই লায়েক, গ্রাহক আলী হোসেন, মিজানুর রহমান মিজান, সানাউর রহমান লাল, সুলেমান মিয়া, মিলাদ হোসেন, মমিন মিয়া, বাপ্পী হোসেন, শিপন মিয়া, আব্দুল করিম, সেলিম মিয়া, জাহির মিয়া, রাসেল মিয়া, পাবেল আহমদ, শাহিন মিয়া, লায়েক আহমদ, রকি মিয়া, জেনিস আহমদ, সুজন মিয়া প্রমুখ।

কর্মসূচিতে বিভিন্ন এলাকার নানা শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বক্তারা বলেন, বিদ্যুৎ বিভাগের কার্যালয়ে বিভিন্নভাবে গ্রাহক হয়রানি, অনিয়ম-দুর্নীতির পাশাপাশি ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের কারণে এলাকার স্থানীয় গ্রাহকরা চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন। তাঁরা বলেন, নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবুল হো‌সেন ও ফজলে রাব্বির মাধ্যমে ঘুষ বাণিজ্যে মেতে উঠেছেন। এ বিভাগের কর্মচারীদের গাফিলতির কারণে এসব ঘটনা নিয়মিত ঘটে যাচ্ছে। মিটার রিডাররা এলাকায় না গিয়ে গ্রাহকদের নামে মনগড়া বিল দিয়ে যাচ্ছেন। মামলার ভয় দেখিয়ে সাধারণ গ্রাহককে করছেন হয়রানি। ট্রান্সফরমার ও বাসা-বাড়ির মিটার নষ্ট হলে গ্রাহকরা অফিসে আসলে টাকা দিয়েও হয়রানির শিকার হতে হয় মাসের পর মাস।

বক্তারা আরো বলেন, অফিসের কর্মকর্তারাই মিটার চুরি করে কৌশলে গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করছেন। দিনে দিনে এখানে গ্রাহক হয়রানি বাড়ছে। বিদ্যুৎ বিভাগের এসব দুর্নীতি ও হয়রানি বন্ধে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তাঁরা।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!