1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
অযত্ন অবহেলায় মধ্যনগর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার নিয়ম বহির্ভূত ফি ফেরত দিচ্ছে সুনামগঞ্জ সরকারি এসসি গার্লস হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য ১১ দফা নির্দেশনা নাসিক প্রমাণ দিল দলীয় সরকারের অধীনেও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব শাবিপ্রবি শিক্ষকদের সাথে সন্ধ্যায় আলোচনায় বসবেন শিক্ষামন্ত্রী অনশনের ৬০ ঘণ্টা: মুখে স্যালাইনও নিচ্ছেন না, বাড়ছে ঝুঁকি শাবিপ্রবিতে অনশন: ১৬ জন হাসপাতালে ভর্তি শাবি’র সংকটে সাস্টিয়ান সুনামগঞ্জ এর উদ্বেগ শাল্লায় ফসলরক্ষা বাঁধের কাজে দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় মামলার আসামি হলেন চেয়ারম্যান বৃটিশ মন্ত্রী-এমপির উপস্থিতিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, র‌্যাব সৃষ্টি করেছে, প্রশিক্ষণ দিয়েছে আমেরিকা-বৃটেন!

চতুর্থ প্রয়াণ দিবসে হুমায়ূন আহমেদকে স্মরণ করলেন হিমু ফজলুল কবির তুহিন

  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬, ৯.৪২ এএম
  • ২১৯ বার পড়া হয়েছে

‘সেলিম চৌধুরী ও তুহিন
মাঝে মাঝে চিন্তা করি-আমার এক জীবনের সঞ্চয় কী? কিছু প্রিয়মুখ, কিছু সুখস্মৃতি…প্রিয়মুখদের ভেতরে আছে। এই বিষয়টা তোমাদের কাছে কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ আমি জানিনা, আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।’
স্যারের অন্যতম জনপ্রিয় উপন্যাস ‘তন্দ্রাবিলাস’ এভাবেই চূড়ান্ত ভালবাসার বহিপ্রকাশ ঘটিয়ে বন্ধুবর কণ্ঠশিল্পী সেলিম চৌধুরী ও আমাকে উৎসর্গ করেছিলেন। মেঘশাদা কাগজে ছাপার হরফের আগেই আমরা একাধিকবার হৃদয়ের গহন থেকে অনুভব ও প্রত্যক্ষ করেছি স্যারের ভালবাসা। বই উৎসর্গে আমাদের আকাশচুম্বি আনন্দ ছিল বহুবহু গুণ। উৎসর্গের পর আমরা আরো অতল থেকে স্যারের ভালবাসা ও ¯েœহ উপভোগ অনুভব করি। বাংলা সাহিত্যের সবচেয়ে প্রভাবশালী লেখক আমাদেরকে তার ভালবাসায় বেধেছেন বই উৎসর্গ করে এটা ছিল আমাদের কাছে বিরাট বিষয়। আমরা নিজেদের গর্ববোধ করি; এখনোÑ। তার তন্দ্রাবিলাস আমাকে তন্দ্রাচ্ছন্ন থেকে তোলে মুখরিত ভালবাসায় মাতিয়ে দিয়ে গিয়েছিল।
হুমায়ূন স্যারের মতো বাংলা সাহিত্যের মহান ও মহৎ কথাশিল্পী আমাদের বই উৎসর্গ করবেন এটা আমি আর সেলিম কখনো ভাবিনী। স্বভাবে বোহেমিয়ানপণার কারণে যখন তখন আমি ঢাকা ছেড়ে কারো লগে কোন যোগাযোগ ছাড়াই আমার শান্ত সোমত্ত ছায়াঘেরা জন্মভিটা সুনামগঞ্জে চলে যেতাম। নগরের তুমুল কোলাহল ও বিষমুক্ত পরিবেশ থেকে নিঃশ্বাস নিতে ছুটে যেতাম পাহাড়ের কোলে হেলান দিয়ে দাঁড়ানো আমার শহরে। সমর্পিত শহরে গিয়ে বিছিয়ে দিতাম বুক। ঝড়জলবানের মিতালিতে খুঁজে নিতাম অন্যরকম সুখ। নদী, হাওর, পাহাড় তার প্রগার প্রশ্রয়ে সমূহ সুখ নিয়ে ধরা দিতো। এসব কারণে স্যারের সঙ্গে প্রায়ই যোগাযোগ বিঘœ ঘটতো। তাছাড়া একসময় নিজেই নাটক পরিচালনায় নেমে যাওয়ার কারণেও অনেক সময় স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যাহত হতো। কিন্তু স্যার ঠিকই খবর নিতেন এই অধমের। কোথায় কি করছি খবর নিতেন প্রিয় বন্ধুদের কাছ থেকে।
কয়েক বছর দূরপ্রবাসে অবস্থাসের ফলে স্যারের গহীন ভালবাসার ছোঁয়া থেকে কিছুদিনের জন্য বঞ্চিত ছিলাম। তখন বুকসেলফে রাখা স্যারের বই ছুঁয়ে ভালোবাসা অনুভব করতাম। সাত সমুদ্র তের নদীর দেশে স্যার যেন ভালই থাকেন সে কামনা করতাম। ভালবাসার ‘তন্দ্রাবিলাস’র সুখস্মৃতি ভিজিয়ে দিতো চোখ।
ভালোবাসায় এমনভাবে বেঁধে স্যার কোথায় গেলেন? স্যার আমরাও যে বাধা পড়েছি আপনার ‘কিছু মুখ, কিছু সুখস্মৃতি…’র দুনিয়ায়। ভাল থাকুন ননন্দ কাননে নন্দনের বরপুত্র।
লেখক: ফজলুল কবির তুহিন: নাট্যাভিনেতা ও নির্মাতা। হুমায়ূন আহমেদের হিমু চরিত্রে অভিনয় করে সুনাম কুড়িয়েছেন। অভিনয় করেছেন তার অসংখ্য নাটক-সিনেমায়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!