1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:৩২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
তাহিরপুরে আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্ঠা, দু’জনকে পুলিশে দিলো জনতা সুনামগঞ্জ ছাত্র ইউনিয়নের ভানবাসি মানুষদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা যতদিন বন্যা পরিস্থিতি ততদিন বানভাসিদের পাশে থাকবে বিজিবি : সিলেট সেক্টর কমান্ডার পর্যাপ্ত ত্রাণ সহায়তা ও সুনামগঞ্জকে দূর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি: রুহিন হোসেন প্রিন্স সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, ত্রাণের জন্য হাহাকার সুনামগঞ্জের দুর্গম এলাকায় দিনভর ত্রাণ দিলো জেলা প্রশাসন সুনামগঞ্জের বন্যার্তদের মধ্যে নিরাপদ পানি ও শুকনো খাবার বিতরণ করছে বিআইডব্লিটিএ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুত লাইন সংস্কারের কাজ করতে গিয়ে একজনের মৃত্যু ইলা কিয়ামতি বইন্যা দেখিনি নিজেদের রেশন থেকে বানভাসিদের ত্রাণ দিচ্ছে সুনামগঞ্জ বিজিবি

চলে গেলেন মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার আবু ওসমান চৌধুরী

  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১.৪৮ এএম
  • ৯১ বার পড়া হয়েছে

হাওর ডেস্ক ::
বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল (অব.) আবু ওসমান চৌধুরী সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) মারা গেছেন। সেখানে পরীক্ষায় তাঁর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। আজ শনিবার সকালে তাঁর মৃতুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর ব্যক্তিগত সহকারী আবুল বাশার। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। এর আগে রবিবার দুপুরে তাকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আবু ওসমান চৌধুরী বার্ধক্যজনিক নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। পরে তাঁর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। তিনি বর্তমানে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সহসভাপতি।
মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে আবু ওসমান চৌধুরী পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একজন মেজর পদে কুষ্টিয়ায় কর্মরত ছিলেন। অপারেশন সার্চলাইট-এর সংবাদ পেয়ে ২৬ মার্চ সকালে বেলা ১১টায় তিনি চুয়াডাঙার ঘাঁটিতে পৌঁছে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন এবং মুক্তিযুদ্ধে সসৈন্য যোগ দেন। এর আগে ১৯৭১ সালের ৬ মার্চ আবু ওসমান চৌধুরী পদ্মা মেঘনার ওপারে কুষ্টিয়া থেকে বরিশাল জেলা পর্যন্ত বিস্তীর্ণ এলাকাকে দক্ষিণ-পশ্চিম রণাঙ্গণ নামকরণ করে সে রণাঙ্গণের অধিনায়কত্ব গ্রহণ করেন। পরে ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল বাংলাদেশ সরকার তাকে দক্ষিণ পশ্চিমাংসের আঞ্চলিক কমান্ডার হিসেবে নিযুক্ত করেন।
মে মাসের শেষার্ধে প্রধান সেনাপতি এম এ জি ওসমানী দক্ষিণ-পশ্চিম রণাঙ্গনকে দুই ভাগ করে ৮নং ও ৯নং সেক্টরদ্বয় গঠন করেন এবং ৮ নং সেক্টরের দায়িত্বে আবু ওসমানকে নিয়োগ করা হয়। প্রাথমিকভাবে সে সময় ওই সেক্টরের অপারেশন এলাকা ছিল কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, বরিশাল, ফরিদপুর ও পটুয়াখালী জেলা। মে মাসের শেষে অপারেশন এলাকা সংকুচিত করে কুষ্টিয়া ও যশোর, খুলনা জেলা সদর, সাতক্ষীরা মহকুমা এবং ফরিদপুরের উত্তরাংশ নিয়ে এই এলাকা পুনর্গঠন করা হয়। এই সেক্টরের প্রধান ছিলেন আবু ওসমান চৌধুরী এবং পরে মেজর এম এ মঞ্জুর। তার প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে ‌’এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম (১৯৭১)’
মুক্তিযুদ্ধে অনন্য অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার আবু ওসমান চৌধুরীকে স্বাধীনতা পদকে ভূষিত করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!