1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
মধ্যনগরে জলমহালের পাহারাদারের উপর হা ম লা য় শি শুসহ আ হ ত ৩ ঘুরে দাঁড়াতে হবে, এই সরকারকে আর সময় দেওয়া যাবে না : ফখরুল কোটা আ ন্দো ল ন : দেশে প্রাণ হারালেন ছয় জন কোটা আন্দোলনে হঠাৎ উ ত্ত প্ত সিলেট আবারো স্থগিত করা হলো সিলেটের এইচএসসি পরীক্ষা সিটি এলাকায় সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ও বন্ধ ঘোষণা ছাত্র রাজনীতি ‘নিষিদ্ধের’ অঙ্গীকারনামায় প্রাধ্যক্ষদের সই নিয়েছে ঢাবির হলের সকল শিক্ষার্থীরা ঢাকা কলেজের সামনে পড়ে থাকা সেই মরদেহ ‘ছাত্রলীগ কর্মী’ সবুজের অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য সব কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, হল ত্যাগের নির্দেশ নতুন মুদ্রানীতি: মূল্যস্ফীতি বশে আনা, আরও যেসব পদক্ষেপ নিতে চান অর্থনীতিবিদরা

সুনামগঞ্জে আ. লীগের ১৪ ইউনিটে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণায় নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বপ্রত্যাশীরা উজ্জীবিত

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৯, ৬.০৫ এএম
  • ১২৭ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি::
দীর্ঘদিন পর সুনামগঞ্জের তৃণমূল আওয়ামী লীগ পুনর্গঠনের কাজ শুরু হয়েছে। ঘোষণা করা হয়েছে ১৪টি সাংগঠনিক ইউনিটের সম্মেলনের তারিখ। ইতোমধ্যে কোন কোন ইউনিটের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিরও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সম্মেলনকে ঘিরে নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বপ্রত্যাশীদের মধ্যে উৎসাহ বিরাজ করছে। তৃণমূলে এ নিয়ে প্রচারণাও শুরু হয়েছে। অনেকে নেতৃত্ব পেতে ইতোমধ্যে জেলার শীর্ষ নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করছেন। জেলা আওয়ামী লীগও উৎসবমুখর পরিবেশে সম্মেলন সম্পন্ন করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে।
তৃণমূল আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে একযুগ বা আরো বেশি সময় ধরে উপজেলা ও পৌরসভাসহ বিভিন্ন সাংগঠনিক ইউনিটের কমিটি হচ্ছেনা। ফলে কোন্দলে জর্জড়িত সংগঠন। এসব ইউনিটগুলোর নেতারা কেবল পদ পদবী ব্যবহার ছাড়া আরো কোন এক্টিভিটিসও নেই। সংগঠনকে গতিশীল বা বিস্তৃত করার বদলে পদ পদবী ব্যবহার করে অনেকে সুবিদা নিচ্ছেন এমন অভিযোগও আছে। তৃণমূল নেতাকর্মীদের অভিযোগ যুগের পর যুগ পদ আকড়ে ধরে নেতারা নানা ছলে নেতৃত্বের পথ বন্ধ করে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়েই সংগঠন দায়সারাভাবে চালাচ্ছেন। তাই নেতৃত্বের সমূহ যোগ্যতা থাকার পরও অনেকে কমিটিতে আসতে পারছেন না। এতে একদিকে সংগঠন ও নেতৃত্বের বিস্তৃতি ঘটছেনা, অন্যদিকে একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় যোগ্য নেতৃত্বও তৈরি হচ্ছেনা। তাই গত ১৪ অক্টোবর ১৪টি সাংগঠনিক ইউনিটের কমিটি গঠনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে তৃণমূল। তারা দুঃসময়ের ত্যাগী, নিবেদিত ও আদর্শবাদী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অসাম্প্রদায়িক নেতৃত্ব বাছাইয়ের দাবি জানিয়েছেন।
এদিকে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর পর তদবিরও বেড়ে গেছে বলে জানা গেছে। নেতৃত্ব প্রত্যাশীদের মধ্যে তৈরি হয়েছে প্রতিদ্বন্ধিতা। তাই উত্তেজনাও সৃষ্টি হয়েছে। তবে সবাই আশা করছেন সুষ্ঠুভাবেই নিরপেক্ষতার সঙ্গে গঠনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সম্মেলনের মাধ্যমে যোগ্যরাই বেরিয়ে আসবেন। জেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল সূত্রও এই নিশ্চয়তায় অঙ্গিকার করেছে।
জেলা কমিটির ঘোষণা অনুযায়ী সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা ও সুনামগঞ্জ পৌরসভায় আগামী ২৩ নভেম্বর, শাল্লা উপজেলায় ৪ নভেম্বর, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ৫ নভেম্বর, জগন্নাথপুর উপজেলায় ৬ নভেম্বর, জামালগঞ্জ উপজেলায় ৯ নভেম্বর, ধরমপাশা উপজেলায় ১০ নভেম্বর, ছাতক উপজেলা ও ছাতক পৌরসভায় ১৬ নভেম্বর, তাহিরপুর উপজেলায় ১৭ নভেম্বর, দিরাই উপজেলায় ২৪ নভেম্বর, দোয়ারাবাজার উপজেলায় ২৫ নভেম্বর, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ৩০ নভেম্বর এবং মধ্যনগর থানায় ৩০ অক্টোবর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিরও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। মাঠে গিয়ে সম্মেলন প্রস্তুতি কাজও শুরু করে দিয়েছে।
জানা গেছে কমিটিতে জামায়াত-বিএনপি থেকে আসা বহিরাগতদের স্থান দেওয়া হবেনা। বরং যারা মুখোশ পড়ে ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ করেছে তাদেরকে গোয়েন্দাদের মাধ্যমে চিহ্নিত করে বের করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও সারাদেশের নেতাদের তৃণমূল আওয়ামী লীগের কমিটিতে ত্যাগী, নিবেতিপ্রাণ ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রকৃত সৈনিক ও আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক আদর্শের অসাম্প্রদায়িক নেতৃত্ব বাছাইয়ের নির্দেশনা দিয়েছেন। সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ এসব নির্দেশনা মেইেন নেতৃত্ব বাছাইয়ের প্রস্তুতি নিয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।
জামালগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল খালেক বলেন, ১৪টি সাংগঠনিক ইউনিটে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করে আমাদের সুযোগ্য জেলা নেতৃবৃন্দ বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছেন। অনেক উপজেলায় বছরের পর বছর সম্মেলন হচ্ছেনা। তাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শধারণকারী নতুন নেতৃত্ব প্রত্যাশীরা হতাশায় আছেন। এই ঘোষণায় নতুন প্রজন্মের দেশপ্রেমিক আওয়ামী পরিবারের রাজনৈতিক কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। আমরা আশা করি ১৪টি সাংগঠনিক ইউনিটেই প্রকৃত আওয়ামী লীগার নেতৃত্ব চাই।
বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহচর মুক্তিযোদ্ধা মনসুব রাজা চৌধুরীর সন্তান ও সুখাইর রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমানুর রাজা চৌধুরী বলেন, আমাদের দাবি আওয়ামী পরিবার ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানদের কমিটিতে স্থান দেয়া হোক। কারণ তারা কখনো আওয়ামী লীগের সঙ্গে বেঈমানি করবেনা। তাদের রক্তে বেঈমানি নেই। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হলে এর বিকল্প নেই।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন বলেন, ১৪টি সাংগঠনিক ইউনিটে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর তৃণমূলে উৎসাহ বিরাজ করছে। সম্মেলন সফল ভাবে সম্পন্ন করতে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ শুধু বাংলাদেশই নয় উপমহাদেশের বৃহৎ ও পুরনো সংগঠন। তাই এই সংগঠনের নেতাকর্মীও বিশাল। আমরা এবার প্রকৃত নেতাদেরই বাছাই করব।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!