1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

টেক্সাসে নির্বিচারে বন্দুকধারীর গুলি, নিহত ২০

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৪ আগস্ট, ২০১৯, ৪.৩৮ এএম
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে

হাওর ডেস্ক ::
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের এল পাসো সিটির ওয়ালমার্ট সুপার সেন্টারে এক বন্দুকধারীর নির্বিচার গুলিতে ২০ জন নিহত হয়েছেন। একইসঙ্গে আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৪ জন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২১ বছর বয়সী এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।
শনিবার (০৩ আগস্ট) স্থানীয় সময় বেলা ১১টার দিকে যুক্তরাষ্ট্র এবং মেক্সিকো সীমান্ত থেকে কয়েক মাইল দূরে এ ঘটনা ঘটে।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, ওই শপিংমলে হামলাটি দীর্ঘ সময় ধরে স্থায়ী ছিল। দফায় দফায় গণহারে গুলি ছোড়া হয়। এতে একের পর এক লোক গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।
স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টার দিকে টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবোট ২০ জন নিহত হওয়ার বিষয়টি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। এর আগে স্পষ্ট ছিল না হামলাটিতে কতোজন হতাহত হয়েছেন। এমনকি কয়জন বন্দুকধারী গুলি চালিয়েছেন, তাও পুরোপুরি নিশ্চিত ছিল না।
হামলাটিকে দেশের ইতিহাসে মারাত্মক ঘটনাগুলোর একটি উল্লেখ করে গ্রেগ অ্যাবোট বলেন, মার্কিন-মেক্সিকান সীমানা থেকে কয়েক মাইল দূরে সিলো ভিস্তা শপিংমলের পাশে এই গণহত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এক যুবককে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। মনে করা হচ্ছে তিনিই এ হামলার একমাত্র বন্দুকধারী। এসময় তাৎক্ষণিক ওই বন্দুকধারীকে আটক করার করণে পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রশংসা করেন গভর্নর।
মার্কিন সংবাদমাধ্যম অনুযায়ী আটক বন্দুকধারীর নাম প্যাট্রিক ক্রুসিয়াস। তিনি টেক্সাসেরই ডালাস এলাকার।
এর আগে দুপুর ১টার দিকে টুইটারে দেশটির পুলিশ জানায়, একাধিক সক্রিয় বন্দুকধারীর হামলা হয়েছে ওয়ালমার্ট সুপার সেন্টারে। নিরাপত্তার জন্য এলাকাটি ঘিরে রাখা হয়েছে। একইসঙ্গে স্থানীয় সবাইকে এই এলাকা এড়িয়ে চলার আহ্বান জানায় পুলিশ।
এল পাসো সিটির মেয়র ডি মারগো এবং পুলিশ সার্জেন্ট এনরিক ক্যারিলো জানিয়েছিলেন, একাধিক বন্দুকধারীর হামলায় বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে। এছাড়া কর্তৃপক্ষ মনে করে না যে, এলাকাটিতে কোনো হুমকি রয়েছে।
তবে সেসময় স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে উল্লেখ করা হলেও এল পাসো সিটির আরেক পুলিশ সার্জেন্ট রাবার্ট গোমেজ বলেছিলেন, এ ঘটনায় সন্দেহভাজন এক যুবক পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন। এছাড়া তিনি দাবি করেন, একজন বন্দুকধারীই হামলাটি চালিয়েছেন।
কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বলছে, গুলিতে আহত হয়ে স্থানীয় দু’টি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন অন্তত ২২ জন। এর মধ্যে ডেল সল মেডিক্যাল সেন্টারে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১১ জন। আর ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টার অব এল পাসোতে ভর্তি আছেন বাকি ১১ জন। দুই হাসপাতালের মুখপাত্র ভিক্টর গোয়েরেরো এবং রায়ান মিয়েলক সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
এদিকে, বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আহতদের চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে রক্তের প্রয়োজন বলে টুইটে রক্তদাতাদের দ্রুত এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে এল পাসো পুলিশ ডিপার্টমেন্ট।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!