1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১২:৪৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সরকারের আলোচনার প্রস্তাব, গঠিত হয়েছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি সুনামগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক শিবির সভাপতি সুমেলসসহ তিন শিবির নেতা গ্রেপ্তার ছাত্রলীগকে স ন্ত্রা সী সংগঠন হিসেবে বিবেচনার প্রশ্নে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র সুনামগঞ্জে কিশোর গ্যাং ও অ প রা ধ প্র তি রো ধ বিষয়ে নিয়ে আলোচনা সভা সিলেটেও স্বেচ্ছায় পদ ছাড়ছেন ছাত্রলীগ নেতারা সিলেটের বন্যা : যুক্তরাজ্য সহায়তা দিচ্ছে ৪ কোটি টাকা কোটা: ‘ও ভাইও হামাক এনা বোন কয়া ডাকো রে’, সাঈদের বোনের আহাকারি বিকল্প নৌপথে সেন্ট মার্টিনের যাত্রীবাহী ট্রলারে আবারও গুলি বর্ষণ বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা দেয় কোটা আন্দোলনকারীরা শনির আখড়ায় পুলিশের ওপর হামলা ঘিরে সংঘাত সৃষ্টি, শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ছয়জন

এসপি বাবলু আক্তারের স্ত্রী মিতা হত্যায় জড়িত দুইজন বন্দুকযুদ্ধে নিহত

  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬, ৭.৩১ এএম
  • ৫৫৬ বার পড়া হয়েছে

Mithuঅনলাইন ডেক্স::
জঙ্গিবাদ বিরোধী বিভিন্ন অভিযানে সাহসী কার্যক্রম পরিচালনার কারণে দেশব্যাপী আলোচিত পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকা-ে সন্দেহভাজন ২ জন পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে।

একই সঙ্গে সন্ত্রাসীদের গুলিতে তিন পুলিশ কর্মকর্তাও আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার রাণীরহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

নুরুল ইসলাম ওরফে রাশেদ (২৭) ও নুরুন্নবী (২৮) নামের ওই দুইজনসহ সন্দেহভাজন মোট পাঁচজনের দেশ ছাড়ায় এ আগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল পুলিশ।

মিতু হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারি কমিশনার (দক্ষিণ) মো. কামরুজ্জামান বিষয়টি জানিয়েছেন।

গত ৫ জুন নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় খুন হন চট্টগ্রামে বিভিন্ন জঙ্গি বিরোধী অভিযানের নেতৃত্ব দেওয়া এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু।

ওই হত্যাকা-ে জড়িত সন্দেহে আটজনকে গ্রেপ্তারের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়লেও গত ২৬ জুন আনোয়ার ও মোতালেব মিয়া ওরফে ওয়াসিম নামে দুজনের গ্রেপ্তারের খবর জানায় পুলিশ।

এরপর ২৮ জুন নগরীর বাকলিয়া থানার রাজাখালী এলাকা থেকে এহতেশামুল হক ভোলা ও মনির হোসেন নামের দুইজনকে দুটি অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ বলছে, আদালতে জবানবন্দিতে ওয়াসিম ও আনোয়ার বলেছেন, মুছার ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী’ এ হত্যাকা- ঘটানো হয়। ওই জবানবন্দিতেই রাশেদ, কালু, শাহজাহান ও নবীর নাম আসে।

পরে ওই পাঁচজনের দেশ ছাড়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারির পর পুলিশ ১ জুলাই শাহজাহান ও মামলায় অন্যতম সন্দেহভাজন মুছার ছোট ভাই সাইদুল ওরফে সাকুকে গ্রেপ্তারের কথা জানায়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!