1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
ছাতকে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ব্যক্তির ‍মৃত্যু আব্দুল গাফফার চৌধুরী অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি উন্নয়নের কারণে ইতিহাসের শ্রেষ্ট সরকার শেখ হাসিনার সরকার: পরিকল্পনামন্ত্রী সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের আগাম কেক কাটলেন পরিকল্পনামন্ত্রী কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা কবে? দেশে পরীক্ষামূলকভাবে ৫জি সেবা চালু হচ্ছে ডিসেম্বরে: ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের উন্নয়নের মূল স্রোতে নিয়ে এসেছি: পরিকল্পনামন্ত্রী মক্কা ও মদিনার দুই মসজিদের জন্য ৬০০ নারী কর্মীকে প্রশিক্ষণ তাহিরপুরে হাজং নারীকে ধর্ষণকারী রশিদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন মহামারি করোনা মোকাবিলায় জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব

ছাতকে দুইদিনে করোনায় মৃত্যু ৮, আক্রান্ত ২৯ স্বজনদের তথ্য গোপনে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা

  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১, ৭.০৭ পিএম
  • ২০ বার পড়া হয়েছে

তমাল পোদ্দার, ছাতকঃ
ছাতকে দুইদিনে করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৮ জন। আর নতুনভাবে করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে ২৯ জনের। নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭০ জনের। উপজেলা জুড়ে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। এদিকে আক্রান্ত ও তাদের স্বজনদের তথ্য গোপনে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এমনকি করোনায় মৃত্যুবরণ করলেও সেটি গোপন রাখার চেষ্টা করছেন আত্নীয় স্বজন। গত দুইদিনে পৌর শহরে ১জন, নোয়ারাই ইউনিয়নে ৪জন, দোলারবাজার ১জন ও সিংচাপইড় ইউনিয়নে ২জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন বলে জানা গেছে। সরকার ঘোষিত কঠোর লক ডাউন বাস্তবায়নে এখানের প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী প্রতিদিনই রয়েছেন তৎপর। লকডাউন কার্যকর করতে পরিচালিত হচ্ছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আইন অমান্য কারীদের বিরুদ্ধে মামলাসহ করা হচ্ছে জরিমানা। তারপরও লোকজন তাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাট বাজারে কোন ধরনের স্বাস্থ্য বিধি না মেনে অবাধে ঘুরছেন। আড্ডা দিচ্ছেন চায়ের দোকানে। করোনা আক্রান্তের লক্ষণ দেখা গেলেও করছেন না পরীক্ষা। আবার কোভিড আক্রান্তরা তথ্য গোপন করে অবাধে হাট বাজারে চলাফেরা করছেন এমন অভিযোগও উঠেছে। প্রতিদিনই এখানে কেউ না কেউ করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু সেটি নিয়ে তথ্য গোপনের প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে। ওই কারনে করোনা ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। লকডাউন উপেক্ষা করে শহরে মানুষ যত্রতত্র ভাবে চলাচল করছেন। ভারী যান চলাচল না করলেও সিএনজি, অটোরিকশা, অটোটেম্পুসহ ছোট ছোট যাত্রীবাহী যান চলাচল করছে উপজেলার সকল রোডে। সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে, বাজার এবং রাস্তার পাশে প্রায় সব ধরনের দোকানই খোলা। কেউ কেউ অর্ধেক শাটার খোলা রেখে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। হোটেলে বসে খাওয়া নিষেধ হলেও ছোট ছোট হোটেলগুলো তা মানছে না।প্রশাসনের লোকজন দেখলে সবাই সতর্ক। চলে গেলে আবার সবাই যে যার মতো। বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে চায়ের দোকানে বসে আড্ডা। অধিকাংশ লোকের মুখে নেই মাস্ক। তাদের মধ্যে এখনো করোনা ভাইরাস নিয়ে উদাসীনতা লক্ষ্য করা গেছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, পরপর দুই বছরই জুলাই মাসে করোনায় মৃত্যুর হার বাড়তে থাকে। ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাজীব চক্রবর্তী বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই। মাস্ক ছাড়া চলাফেরায় ঝুঁকি বাড়ছে। প্রত্যেকরেই উচিত নিজেদের সুরক্ষিত রাখা, তাহলে সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুনুর রহমান বলেন, সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে প্রতিদিনই এখানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী মহড়া দিয়ে থাকে। লকডাউন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। তিনি সবাইকে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে সরকারের দেয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!