1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়: সিলেট-ঢাকাসহ দেশের অধিকাংশ জেলায় বিদ্যুৎ নেই সুনামগঞ্জে বিজিবির অভিযানে ৭ লাখ টাকার অবৈধ পণ্য জব্দ আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা নারায়ণতলা সীমান্তে ২০ লাখ টাকার ভারতীয় কাপড়ের চালান আটক করেছে বিজিবি মেডিকেল রিপোর্টে ধর্ষণের আলামত না পাওয়ার পরও ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার মদনপুর দিরাই সড়কে ট্রলি মোটর সাইকেল সংঘর্ষে একজন নিহত বঙ্গবন্ধুর খুনি শাহরিয়ার রশিদের জামাতার ৭ বছর জেল অফিস সময় আরো এক ঘণ্টা বাড়ছে! ৪০০ কর্মী ছাঁটাই করবে বিবিসি নিউজ তাহিরপুর সীমান্তের দুর্গম বড়গোপ টিলায় বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা করে দিলো আব্দুর রহিম মেমোরিয়াল ট্রাস্ট

ধর্মপাশায় পুলিশ পেটানো মামলায় ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২, ৭.৩২ পিএম
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার::
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় পুলিশ পেটানো (এসল্ট) মামলায় ১১জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে এজাহারভূক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তারও করেছে। প্রধান আসামি পাইকুরহাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দাবিদার পিন্টু চন্দ্র দে পালিয়ে গেছে। তবে উপজেলা ছাত্রলীগের দায়িত্বশীলরা জানিয়েছেন পিন্টু চন্দ্র দে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটির কেউ না। বর্তমানে এই ইউনিয়নে ছাত্রলীগের কোন কমিটি নেই। সে অবৈধভাবে পরিচয় দিচ্ছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপুরে উপজেলার পাইকুরহাটি ইউনিয়ন কার্যালয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ চলছিল। এসময় পাইকুরহাটি গ্রামের মাধব চন্দ্র দের পুত্র পিন্টু চন্দ্র দে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পরিচয় দিয়ে জোরপূর্বক উপস্থিতিদের সারিতে ডুকে হট্টগোল শুরু করে। এসময় পুলিশ বাধা দিলে পিন্টু তার দলবল নিয়ে পুলিশের উপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। এতে এসআই শামীম আহমদ, কনেস্টেবল নান্টু দাস, কানু বিশ্বাস ও তপু সরকার আহত হন। তাদেরকে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
ধর্মপাশা থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় শনিবার রাতেই আহত এসআই শামীম বাদী হয়ে ১১ জনের বিরুদ্ধে ধর্মপাশা থানায় সরকারি কাজে বাধা ও পুলিশকে মারধরের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। এতে প্রধান আসামি করা হয়েছে পিন্টুকে। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। মামলার তালিকাভূক্ত আসামি মাধব চন্দ্র দে ও জয় চন্দ্র দেকে রাতে নিজ এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ। তাদেরকে আদালতে প্রেরণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানান ওসি।
ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বলেন, পিন্টু চন্দ্র দেব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কেউ নয়। তার সঙ্গে ছাত্রলীগের কোন সম্পর্ক নেই। সে অবৈধভাবে পরিচয় সংগঠনের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!