1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সিলেটসহ ১১ অঞ্চলে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস আইন অমান্য করে আন্দোলন করায় বাংলাদেশিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করলো আরব আমিরাত সুনামগঞ্জে ইন্টারনেটবিহীন সময়ে বিদ্যুৎ অফিস থেকে জরুরি সেবা নিয়েছেন ৩০ হাজার গ্রাহক বন্যায় ঘরহারা ক্ষতিগ্রস্তরা সহযোগিতা চান ফেইসবুক টিকটক আপাতত বন্ধ থাকছে আজ রাতেই সারা দেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট চালু কোটা সংস্কার আন্দোলনে নাশকতাকারীদের তথ্য দিলে ‘পুরস্কার’ সুনামগঞ্জে জামায়াত নেতা আব্দুস সাত্তার মামুন গ্রেপ্তার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সরকারের আলোচনার প্রস্তাব, গঠিত হয়েছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি সুনামগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক শিবির সভাপতি সুমেলসসহ তিন শিবির নেতা গ্রেপ্তার

দোয়ারাবাজারে ভোট না দেওয়ায় পরাজিত সদস্য প্রার্থীর ছেলের হুমকি

  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৬, ৪.৪৭ পিএম
  • ৩৯৫ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার::
সদ্য সমাপ্ত সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট না দেওয়ায় এক পরাজিত প্রাার্থীর লোকজন ইউপি সদস্যদের হুমকি ধমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দোয়ারাবাজার থানায় বৃহষ্পতিবার রাতে এক ইউপি সদস্য পরাজিত সদস্যপ্রার্থীর ছেলের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, জেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৩ নং ওয়ার্ডে সদস্য প্রার্থী কলাউড়া গ্রামের বিশিষ্ট ঠিকাদার মো. নূরুল ইসলাম নির্বাচন করে পরাজিত হন। গত বৃহষ্পতিবার বিকেলে তার ছেলে তারেক মিয়া সুরমা ইউনিয়নের ৫ নং ইউপি সদস্য আব্দুল মতিনের মোবাইল ফোনে ভোট না দেওয়ায় হুমকি দেয়া হয়। একই দিনে ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল কাদির, ৬ নং ইউপি সদস্য নূরুল ইসলাম, ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বীর চন্দ্র পুরকায়স্থ, ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলতাফ হোসেনকে হুমকি প্রদান করা হয়। অভিযোগে টাকা লেন-দেনের বিষয়টি অস্বীকার করে ইউপি সদস্যরা জানান, তারা নূরুল ইসলাম কন্ট্রাকটরকে ভোট না দেওয়ার কারণেই তার ছেলে তাদেরকে হত্যার হুমকদি ধমকি দিচ্ছে।
দোয়ারাবাজার থানার ওসি মো. এনামুল হক বলেন, ইউপি সদস্যের লিখিত অভিযোগটি পেয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ বিষয়ে পরাজিত প্রার্থী মো. নূরুল ইসলাম বলেন, যারা অভিযোগ করেছে তারা আমার অত্যন্ত ঘনিষ্টজন। আমার ভাতিজা দাবি নিয়েই তাদের মোবাইলে একটু উচ্চবাচ্য করেছে। কারণ এই মেম্বাররা আমার অত্যন্ত ঘনিষ্ট লোক। তারা ভোট না দেওয়ায় কষ্ট পেয়ে তাদের সঙ্গে আমার ভাতিজা খারাপ আচরণ করায় আমি দুঃখিত।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!