1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ১২:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সরকারের আলোচনার প্রস্তাব, গঠিত হয়েছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি সুনামগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক শিবির সভাপতি সুমেলসসহ তিন শিবির নেতা গ্রেপ্তার ছাত্রলীগকে স ন্ত্রা সী সংগঠন হিসেবে বিবেচনার প্রশ্নে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র সুনামগঞ্জে কিশোর গ্যাং ও অ প রা ধ প্র তি রো ধ বিষয়ে নিয়ে আলোচনা সভা সিলেটেও স্বেচ্ছায় পদ ছাড়ছেন ছাত্রলীগ নেতারা সিলেটের বন্যা : যুক্তরাজ্য সহায়তা দিচ্ছে ৪ কোটি টাকা কোটা: ‘ও ভাইও হামাক এনা বোন কয়া ডাকো রে’, সাঈদের বোনের আহাকারি বিকল্প নৌপথে সেন্ট মার্টিনের যাত্রীবাহী ট্রলারে আবারও গুলি বর্ষণ বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা দেয় কোটা আন্দোলনকারীরা শনির আখড়ায় পুলিশের ওপর হামলা ঘিরে সংঘাত সৃষ্টি, শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ছয়জন

শাল্লায় পিআইসিদের হুশিয়ারি: মানসম্মত কাজ না হলে বিল পাবেন না

  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২০, ৮.৫৭ পিএম
  • ২৬৬ বার পড়া হয়েছে

শাল্লা সংবাদদাতা:
শাল্লায় পিআইসিদের সভায় অনিয়ম হলে কড়া হুশিয়ারি দিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। ২২ জানুয়ারি বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ গণমিলনায়তনে ১৩৭টি পিআইসি সদস্যদের হাওরের ফসলরক্ষার জন্য ম্যাপের মাধ্যমে বাঁধ তৈরির দিক নির্দেশনা দেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ প্রকৌশলী শমশের আলী। বাঁধের কাজে অনিয়ম না করার জন্য পিআইসিদের সতর্ক করেন তিনি। পাশাপাশি পিআইসিদের দ্রুত বাঁধের কাজ সমাপ্ত করার অনুরোধও করেন শমশের আলী।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রহমানের সঞ্চালনায় ও নির্বাহী কর্মকর্তা আল-মুক্তাদির হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন কোনোভাবেই বাঁধের গোড়া থেকে মাটি কাটা যাবে না। নীতিমালা অনুযায়ী কাজ করতে হবে। বাঁধের গোড়া থেকে মাটি কাটলে সেই গর্ত ভরাট করতে হবে। ২ ফুট মাটি ফেলে কম্পেকশন করতে। ৬ ফুট উচ্চতা হলে ১২ ফুট স্লোব করতে হবে। অন্যান্য কাজ নিয়ম অনুযায়ী করবেন। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন শতভাগ কাজ না হলে ৬০ ভাগ বিলও পাবেন কিনা সন্দেহ আছে। কাজেই মানসম্মত কাজ করতে হবে আপনাদের। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কিন্তু কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দিচ্ছেন ফসলরক্ষার জন্য। এটি আপনাদের মাথায় রাখতে হবে। ভালো কাজ হলে আমরা আগামীতে আরো বেশি বরাদ্দ পাবো।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল-মুক্তাদির হোসেন বলেন নিয়ম অনুযায়ী বাঁধের কাজ করুন পুরস্কার পাবেন। অনিয়ম করলে আমারদের যে প্রশাসনিক ক্ষমতা রয়েছে তা প্রয়োগ করতে বাধ্য হবো। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডঃ দিপু রঞ্জন দাস, শাল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় উপজেলার ১৩৭টি প্রকল্পের সভাপতি ও সদস্য সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৯-২০২০ সালে উপজেলা হাওরের ফসলরক্ষায় ১৩৭টি প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২৪কোটি ১৭লাখ টাকা।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!