1. haornews@gmail.com : admin :
  2. editor@haor24.net : Haor 24 : Haor 24
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:৩৩ অপরাহ্ন

মালয়েশিয়া অভিবাসীদের সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা গচ্ছা!

  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১১.১০ পিএম
  • ২৮১ বার পড়া হয়েছে

রাজু আহমেদ রমজান, মালয়েশিয়া থেকে:
শ্রমের অনুমতি (ওয়ার্ক পারমিট) না থাকা অভিবাসীদের “ওয়ার্ক পারমিট” দেয়ার লক্ষ্যে ২০১৬ সালে ‘হিয়ারিং প্রোগ্রাম’ শীর্ষক একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছিল মালয়েশিয়া সরকার। প্রকল্পটির মেয়াদ শেষ হয় ২০১৮ সালে। রাষ্ট্রের এমন উদ্যোগে পাসপোর্টসহ হাড়ভাঙা পরিশ্রমের জমানো টাকা দিয়েছিলেন বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, ইন্দোনেশিয়াসহ বিভিন্ন দেশের ৬ লক্ষাধিক অভিবাসী। সবশেষ গচ্ছা যায় প্রায় সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা।

জানা গেছে, সরকারী এ প্রকল্পটি পরিচালনা করে দেশটির বেসরকারি সংস্থা (ভেন্ডর)। প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জনপ্রতি অভিবাসী থেকে ৬ হাজার রিঙ্গিত জমা নেয়। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় একলাখ ২০ হাজার টাকা। মোট ৭ লাখ ৪৪ হাজার অভিবাসী এ টাকা জমা দেন। সে হিসেবে সরকারের কোষাগারে জমা পড়ে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা।

মালয়েশিয়া অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করা বেসরকারি একটি সংস্থার প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। অন্যদিকে ‘ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে’ নামে দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম গত ১৭ ডিসেম্বর সংস্থাটির বরাত দিয়ে এমন খবর প্রকাশ করে।

  1. জানা গেছে, এ প্রকল্পে ৭ লাখ ৪৪ হাজার অভিবাসী টাকা জমা দিলেও ওয়ার্ক পারমিট দেয়া হয়েছে মাত্র একলাখ ১০ হাজার অভিবাসীকে। বাকি ৬ লাখ ৩৪ হাজার অভিবাসীকে ওয়ার্ক পারমিট দেয়া হয়নি। এমনকি তাদের জমা দেয়া টাকা ও পাসপোর্ট ফেরত দেয়া হয়নি। সংস্থাটির প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি, ওয়ার্ক পারমিট না পাওয়া অভিবাসীদের জমা দেয়ার অর্থের পরিমাণ প্রায় সাড়ে সাত হাজার কোটি টাকা।
Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazarhaor24net
© All rights reserved © 2019-2024 haor24.net
Theme Download From ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!